এবার গাড়িতে গরিলা গ্লাস

কর্নিয়ের তৈরি গরিলা গ্লাস কোটি কোটি মোবাইল ফোনের ডিসপ্লেতে ব্যবহৃত হচ্ছে। এখন গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো গাড়ির ওজন কমাতে ও জ্বালানি খরচ কমাতে গাড়িতে এ গ্লাসের ব্যবহার শুরু করেছে।
গত বছরে বিএমডব্লিউ এজি গাড়িতে প্রথম গরিলা গ্লাস ব্যবহার করেছিল। বিএমডব্লিউ আই ৮ হাইব্রিড স্পোর্টস কারে ইনটেরিয়র প্যানেল তৈরিতে এই গ্লাস ব্যবহার করা হয়েছিল। এবারে ফোর্ড মোটর কর্তৃপক্ষ তাদের ফোর্ড জিটি স্পোর্টস কারের উইন্ডশিল্ডে ও পেছনের জানালায় গরিলা গ্লাস ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
জিটির ইঞ্জিন কভারেও গরিলা গ্লাসের ব্যবহার হয়েছে। আগামী বছর থেকে এই গাড়ি বিক্রি শুরু করবে ফোর্ড।
ফোর্ডের গাড়ির বর্হি কাঠামো এক্সটেরিয়র বিভাগের কর্মকর্তা পল লিনডেন বলেন, ১৯২৩ সালের পর থেকে গ্লাস ব্যবহারের ক্ষেত্রে এটি নতুন একটি বিষয়। ১৯২৩ সালে হেনরি ফোর্ড টি মলেডের গাড়িতে গ্লাস ব্যবহার শুরু করেন।
প্রচলিত উইন্ডশিল্ড তৈরিতে দুই স্তরের অ্যানিয়ালেড গ্লাস ব্যবহার করা হয়। এ দুই স্তরের গ্লাসের মাঝে একটি পাতলা প্লাস্টিকের স্তর থাকে। অ্যানিয়ালেড গ্লাস যখন ভেঙে যায় তখন মাকড়সার জালের মতো দেখায় এবং প্লাস্টিকেরও ওই স্তরে আটকে থেকে আরোহীকে আহত হওয়া রোধ করতে পারে।
ফোর্ডের গবেষকেরা বলছেন, গাড়ির উইন্ডশিল তৈরিতে তাঁরা বাইরের স্তরে অ্যানিয়ালেড গ্লাস ও মাঝে প্লাস্টিকের স্তর রেখেছেন। তবে ভেতরের স্তরটিতে তাঁরা কর্নিয়ের গরিলা গ্লাস ব্যবহার করেছেন। এতে উইন্ডশিল্ড হালকা ও পাতলা হয়েছে। ফোর্ড কর্তৃপক্ষের দাবি, গরিলা গ্লাস ব্যবহারে উইন্ডশিল্ড ৩২ শতাংশ হালকা হয়েছে। গাড়ির জ্বালানি খরচ কমিয়ে গাড়িকে নিয়ন্ত্রণে বাড়তি সুবিধা দিতে পারে এটি।

কর্নিয়ের দাবি, এ গ্লাস যুক্তরাষ্ট্রের নিরাপদ মান পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছে। গাড়ি নির্মাতারা অসমতল রাস্তা ও বাতাসের মধ্যে এ গ্লাস নিয়ে পরীক্ষা চালিয়েছে যাতে দেখা গেছে প্রচলিত গ্লাসের চেয়ে গরিলা গ্লাস বেশি মজবুত। গাড়িতে পাথর ছুড়ে দেখা গেছে অ্যানিয়ালেড গ্লাস ভেঙে গেলেও গরিলা গ্লাস সহজে ভাঙে না। অবশ্য গরিলা গ্লাস সব জায়গায় কাজ করে না। গাড়ির পাশের জানালায় গাড়ি নির্মাতারা সাধারণত টেম্পারড গ্লাস ব্যবহার করেন। কারণ এ গ্লাস ভঙ্গুর হওয়ায় কোনো দুর্ঘটনায় পড়লে দ্রুত আরোহী সেখান দিয়ে বের হতে পারেন।
কর্নিয়ের গাড়ির গ্লাস ব্যবসার পরিচালক ডাগ হ্যাসবার্গার বলেন, পুরো গাড়িতে গরিলা গ্লাস ব্যবহারের জন্য বিকল্প উপায়ে গ্লাস তৈরির কথা ভাবছে কর্নিং।
২০০৭ সাল থেকে কনজুমার ইলেকট্রনিকস শিল্পে কর্নিয়ের তৈরি গরিলা গ্লাস ব্যবহৃত হচ্ছে। ২০১২ সাল থেকে ফোর্ড ও কর্নিং গাড়ির গ্লাস তৈরির জন্য কাজ শুরু করে। হ্যাসবার্গার বলেন, ফোর্ড ছাড়াও অন্যান্য গাড়ি নির্মাতাদের সঙ্গে গরিলা গ্লাস নিয়ে কাজ করছে কর্নিং।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *